1. admin@dwiptv.com : dwiptv.com :
  2. dwiptvnews2121@gmail.com : sub editor : sub editor
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১১:৫৩ পূর্বাহ্ন

লাকসাম পৌর নির্বাচনে ২য় বারের মতো নৌকার মাঝি- অধ্যাপক আবুল খায়ের

মোঃ রবিউল হোসাইন (সবুজ), লাকসাম, কুমিল্লা:
  • আপডেট: রবিবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২০
লাকসাম পৌর নির্বাচনে ২য় বারের মতো নৌকার মাঝি- অধ্যাপক আবুল খায়ের
লাকসাম পৌর নির্বাচনে ২য় বারের মতো নৌকার মাঝি- অধ্যাপক আবুল খায়ের

তৃতীয় ধাপের ৬৪টি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।লাকসাম পৌরসভার পৌর-পিতা হিসেবে নৌকা মার্কার মনোনিত প্রার্থী লাকসামের তরুন প্রজন্মের জনপ্রিয় নেতা অধ্যাপক আবুল খায়েরকে নৌকা মার্কা উপহার দেন।

চট্টগ্রাম বিভাগে (৮টি পৌরসভা) কুমিল্লার লাকসাম বর্তমান মেয়ের অধ্যাপক আবুল খায়ের; বরুড়ায় মো. বক্তার হোসেন; চৌদ্দগ্রামে মো. মীর হোসেন মীরু;চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে আ. স. ম. মাহবুব-উল আলম; ফেনীতে (সদর) মো. নজরুল ইসলাম স্বপন; নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের চৌমুহনীতে আক্তার হোসেন; হাতিয়ায় কে, এম ওবায়েদ উল্যাহ; লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে মো. আবুল খায়ের পাটওয়ারী।

রোজ বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) সকালে এলাকাবাসীকে সঙ্গে নিয়ে ঢাকা ধানমন্ডি-৩ এর পার্টি অফিস নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ফরম জমা দেন।

এবার পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের একাধিক প্রার্থী মেয়র পদে নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিয়েছেন। তারা হলেন- বর্তমান মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের। কুমিল্লা জেলা লাকসাম উপজেলা পরিষদের সম্মানিত ভাইস চেয়ারম্যান মহব্বত আলী ও লাকসাম প্রেসক্লাবের সেক্রেটারি জনাব মোঃ রফিকুল ইসলাম হিরাকে সহ লাকসাম আ.লীগের কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের কাছে প্রার্থীতা ঘোষনা করেন। পরে দল যাচাই-বাচাই পরবর্তী ৩ জনের নাম প্রস্তাব পাঠান কেন্দ্রে। কেন্দ্র বিচার বিশ্লেষণ করে বর্তমান মেয়রকে মনোনয়নে সিদ্ধান্ত দেন।

শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকালে গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়।এসময় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে চূড়ান্ত প্রার্থীদের নাম তালিকা প্রকাশ করা হয়।

এই খবরে উচ্ছাসিত, আনন্দিত লাকসাম পৌরবাসী।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে ও এলজিআরডি মন্ত্রী লাকসাম-মনোহরগঞ্জে অহংকার গর্ব জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি মহোদয়কে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে লাকসামের তরুন,যুব সমাজসহ সর্বস্তরের জনগণ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিনন্দন শুভেচ্ছা বার্তা ‘র স্টাটাসে টাইমলাই ভরিয়ে দিতে দেখা গেছে।

ভোটার দের সাথে আলাপ কালে কয়েকজন ভোটার জানান, জননেত্রী শেখ হাসিনা লাকসাম পৌরসভা নির্বাচনে যোগ্য নেতা কে মনোনিত করেছেন। লাকসাম পৌর বাসী বিপুল ভোটের মাধ্যমে দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে এই পৌরসভাটি উপহার দেবেন।

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ একটি বিশাল দল। এখানে দলের মনোনয়ন পেতে প্রার্থী বেশি থাকবে এটাই স্বাভাবিক। তবে দলের হাইকমান্ড বিচার বিশ্লেষণ করে পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক আবুল খায়েরকে যোগ্য মনে করে বলে পুনরায় উনাকে আওয়ামীলীগ দলীয় নৌকার টিকিট দিয়েছেন।আর এখন যারা আওয়ামীলীগ করে সবার একটাই কাজ আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থীকে দলমত নিবিশেষে বিজয়ী করে নিয়ে আসা।”

এর আগে ২০১৫ সালে লাকসাম পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে অধ্যাপক আবুল খায়ের মেয়র বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, নির্বাচিত হওয়ার পর মেয়র হিসেবে দীর্ঘদিনের উন্নয়ন বঞ্চনা ও জনভোগান্তি থেকে পৌরবাসীকে মুক্তি দিতে দিন-রাত অক্লান্তভাবে কাজ করেছেন তিনি।

মেয়র হিসেবে তাঁর অগ্রাধিকার তালিকায় থাকা রাস্তাঘাটের উন্নয়ন, ড্রেনেজ ব্যবস্থার মাধ্যমে জলাবদ্ধতা পরিস্থিতির উন্নয়ন,বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ, যানজট সমস্যার উন্নয়ন ও ময়লা-আবর্জনা অপসারণ এসব কাজে তিনি তার আন্তরিকতার স্বাক্ষর রেখেছেন।

এছাড়া করোনাভাইরাস সংক্রমণের শুরু থেকে পৌরবাসীর সেবায় নিবেদিত ছিলেন লাকসাম পৌরসভার মেয়র মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের। এ সময়ে দিনরাত পৌরবাসীকে তিনি সেবা দিয়েছেন।
এসবের মাধ্যমে তিনি পৌরবাসীর প্রতি তার দায়িত্বশীলতার পরিচয়ই প্রকাশ করেছেন।

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচন কমিশনের ঘোষনা অনুযায়ী ৩য় ধাপে দেশের আগামী ৩০ জানুয়ারি দেশের ৬৪টি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনের প্রচারে মন্ত্রী-সাংসদেরা অংশ নিতে পারবেন না। তবে এ প্রথম পৌরসভায় দলীয়ভাবে মেয়র পদে নির্বাচন হবে । কিন্তু সংরক্ষিত কাউন্সিলর ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে আগের মতোই নির্দলীয়ভাবে নির্বাচন হবে।

লাকসাম পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন লাভের পর তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় অধ্যাপক মো. আবুল খায়ের বলেন, আমাকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে পুনরায় মনোনয়ন দেয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও এলজিআরডি মন্ত্রীর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এলজিআরডি মন্ত্রীর আন্তরিকতায় বিগত ৫ বছরে লাকসাম পৌরসভায় রেকর্ড পরিমাণ উন্নয়ন হয়েছে।লাকসাম ২০০ কোটি টাকার কাজ চলছে। ১০০ কোটি টাকার কাজ সম্পন্ন।তবে বাকি ১০০ কোটি টাকার কাজ চলমান। উন্নয়নের এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে পৌরবাসী আমাকে পুনরায় নির্বাচিত করবে বলে আমি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি।

নির্বাচন কমিশন অফিস সূত্রে জানা গেছে,লাকসাম পৌরসভা ৩য় ধাপের নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ৩১ ডিসেম্বর। যাচাই-বাছাই ৩ জানুয়ারি। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১০ জানুয়ারি। ভোট গ্রহণের তারিখ ৩০ জানুয়ারি।

উল্লেখ্য, এ পৌরসভা ১৯৮৪ সাল,আয়তন: ১৯.৭৩ বর্গ কিলোমিটার লাকসাম পৌরসভা গঠিত হয়। ২০১৫ সালে সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম মেয়াদে ২০১৬ সাল থেকে দায়িত্ব পালন করে অধ্যাপক আবুল খায়ের একাধারে শিক্ষক এবং ব্যবসায়ী। রাজনীতির মাধ্যমে লাকসাম পৌরবাসীর পাশে থাকতে চান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আমাদের এন্ড্রয়েড এপস আপনার মোবাইলে ইন্সটল করুন।

Developer By Zorex Zira