1. admin@dwiptv.com : dwiptv.com :
  2. dwiptvnews2121@gmail.com : sub editor : sub editor
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৩৬ অপরাহ্ন

যশোর নওয়াপাড়া নদী বন্দরে অভিযান :অবৈধ ৬০ টি স্থাপনার মধ্যে  ৩২টি অভিযান সম্পন্ন

উৎপল ঘোষ,(ক্রাইম রিপোর্টার )
  • আপডেট: শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২
যশোর নওয়াপাড়া নদী বন্দরে অভিযান :অবৈধ ৬০ টি স্থাপনার মধ্যে  ৩২টি অভিযান সম্পন্ন
যশোর নওয়াপাড়া নদী বন্দরে অভিযান :অবৈধ ৬০ টি স্থাপনার মধ্যে  ৩২টি অভিযান সম্পন্ন

যশোর নওয়াপাড়া নদী বন্দরে অভিযান :অবৈধ ৬০ টি স্থাপনার মধ্যে  ৩২টি অভিযান সম্পন্ন

যশোর জেলার অভয়নগর উপজেলার শিল্প-বানিজ্যে ও বন্দর নগরী নওয়াপাড়া নৌ- বন্দরে অবৈধ তালিকায় থাকা ৬০টি ঘাটের মধ্যে ৩২টি ঘাটে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন নৌ বন্দর কর্তৃপক্ষ। এই উচ্ছেদ অভিযান শরু হয়েছে বুধবার সকাল থেকে।
প্রথম দিনে নওয়াপাড়া ও তালতলা এলাকায় অবস্থিত ৯টি অবৈধভাবে গড়ে ওঠা ঘাট উচ্ছেদ করা হয়। উচ্ছেদ অভিযান সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে। দ্বিতীয় দিন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৩টি অবৈধ ঘাটের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
সূত্র জানায়, অবৈধ ঘাট গুলোর কাছ থেকে সরকার দুই থেকে আড়াই কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে।

বাংলাদেশ অভ্যান্তরিণ নৌ কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ)-এর পরিচালনায় উচ্ছেদ অভিযানে অংশগ্রহণ করেন নওয়াপাড়া নদী বন্দরের উপ-পরিচালক মাসুদ পারভেজ, বিআইডাব্লিউটিএ’র নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট শোভন রাংসা, সহকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহাঙ্গীর আলম, জুলহাস উদ্দিন, বিআইডব্লিউটিএ’র নওয়াপাড়া নদী বন্দরের সহকারী পরিচালক মোঃ ফরিদুল ইসলাম, যুগ্ম পরিচালক মোঃ আনারাফ হোসেন সহ অভয়নগর থানা পুলিশ, স্থানীয় নৌ পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ও বিভিন্ন ইলেকট্রনিক এবং প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

প্রথম দিনে উচ্ছেদ হওয়া ঘাট গুলির মধ্যে রয়েছে, তালতলা এলাকায় অবস্থিত সরকার ট্রের্ডাস , তালতলা স্টোন হাউজ, এস এ এন্টার প্রাইজ, এমপি শাহিন চাকলাদারের চাকলাদার স্টোন হাউজ, নওয়াপাড়া এলাকার ব্রাইট ঘাট এক, ব্রাইট ঘাট দুই, অধিকারী ট্রের্ডাস, শংকরপাশা এলাকার রফিক গাজী ও জলিল গাজীর ঘাট।
দ্বিতীয় দিনে যেসব ঘাটের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার করা হয়। সেগুলো হলো, নওয়াপাড়া ফেরীঘাট সংলগ্ন পোটন ট্রেডার্স, ইউনাইটেড ঘাট-১, ইউনাইটেড ঘাট-২, এমপি রণজিৎ কুমার রায়ের ছেলের ঘাট নিয়তী ট্রেডার্স, সরকার ট্রেডার্স ঘাট, এমপি আফিল উদ্দিনের ৬টি অবৈধ ঘাট, পরশ আটা ময়দা ও সূজীর মালিক আনিসুর রহমানের ৩টি অবৈধ ঘাট, জয়েন্ট ট্রেডিং ঘাট, ফজলু শেখ ঘাট, ইজাহার মোল্যা ঘাট ও মালোপাড়া ঘাট। বাকি ২৮টি অবৈধ ঘাটের বিরুদ্ধে ১৫ই আগষ্টের পর যে কোনো দিন পুনরায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার মাধ্যমে অপসারণ করা হবে বলে জানান কতৃপক্ষ।

নওয়াপাড়া নদী বন্দরের উপ-পরিচালক মাসুদ পারভেজ প্রতিবেদককে জানান, নওয়াপাড়া নদী বন্দর এলাকায় ২দিনে আমরা ৩২টি অবৈধ ঘাট উচ্ছেদ করেছি। বাকি তালিকাভুক্ত ২৮টি অবৈধ ঘাটে ১৫ই আগষ্টের পর যে কোনো দিন পুনরায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে। সকল অবৈধ ঘাট উচ্ছেদ না হওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন

আমাদের এন্ড্রয়েড এপস আপনার মোবাইলে ইন্সটল করুন।

Developer By Zorex Zira