1. admin@dwiptv.com : dwiptv.com :
  2. dwiptvnews2121@gmail.com : sub editor : sub editor
সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০৬:২০ অপরাহ্ন

চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়নে সমিতির নাম দিয়ে অন্যের জমি দখল

সুমন কান্তি দাশ স্টাফ রিপোর্টার, চকরিয়া
  • আপডেট: শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১
চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়নে সমিতির নাম দিয়ে অন্যের জমি দখল করছেন
চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়নে সমিতির নাম দিয়ে অন্যের জমি দখল করছেন

কক্সবাজারের চকরিয়ায় মাইজকাকারা যুব একতা সমবায় সমিতি নাম দিয়ে দিনদুপুরে অন্যের জমি দখল করে দোকানঘর নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে দখলবাজ চক্রের বিরুদ্ধে। আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকার পরও এসবের তোয়াক্কা করছেন দখলবাজ চক্রটি। ক্লাবের নাম দিয়ে অর্ধশতাধিক লাঠিয়াল বাহিনী দালানঘর নির্মাণ কাজে সহায়তা করছেন। এসবের প্রতিবাদ করলে সংগঠনটির সদস্যরা উল্টো প্রাণনাশের হুমকি ধমকি দিচ্ছেন।

 

এমনই চিত্র দেখা গেছে, চকরিয়া উপজেলা কাকারা ইউনিয়নের মাইজকাকারা এলাকায়। জানা যায়, চকরিয়া পৌরসভা ২নং ওয়ার্ডের হালকাকারা সওদাগরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা এবিএম সাকের গত ২০১১ সালে কাকার ইউনিয়নের মাইজকারা বাসিন্দা নুর মোহাম্মদ নুরুল কাদেরের কাছ থেকে ৭৯৬৬ কবলা মূলে প্রায় ৩৯ শতক জমি ক্রয় করেন। গত দশ বছর ধরে ক্রয়কৃত জমিতে বিভিন্ন ফসলাদি ও সবজির চাষ করে ভোগদখলে রয়েছেন। এদিকে জমির দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় লোলুপ দৃষ্টিপড়ে কাকারা ইউনিয়নের মাইজকাকারা যুব একতা সমবায় সমিতি নামে বির্তকিত একটি সংগঠনের। জমি দখল নিয়মিত ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। বর্তমানে সংগঠনটি এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে।

 

স্থানীয় মুরব্বিরা জানান, অর্ধশতাধিক যুবক নিয়ে গঠিত হয়েছে সংগঠনটি। সমিতি গঠনের পর বেপরোয়া হয়ে উঠেছে সদস্যরা। মূলত সংগঠনটি নিয়ন্ত্রণ করেন মাইজ কাকারার আবদুল মোনাফ ড্রাইভার, রশিদ আহমদ, ওমর ফারুক, শমসু, মোহাম্মদ হোসেন, হাবিবুর রহমান ও আলী আহমদ। ওই সংগঠনের সদস্যদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে। তাদের নেতৃত্বে নানা অপকর্ম পরিচালিত হয়ে আসছে। ইয়াবা ব্যবসা থেকে শুরু করে চুরি, ডাকাতি ও রিজার্ভ বনভূমির জমি দখল নিয়মিত ব্যাপার হয়ে দাড়িয়েছে। সদস্যদের বিরুদ্ধে বনভূমি দখল ও বনের গাছ চুরির একাধিক বন মামলা রয়েছে।

 

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এক আওয়ামীলীগ নেতা জানান, স্থানীয় এক প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধির ছত্রছায়ায় তারা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এমন কাজ নেই তারা করে না। গত এক সপ্তাহ ধরে অন্যের জমি দখল করে নুতন করে আলোচনা এসেছে মাইজকাকারা যুব একতা সমবায় সমিতি নামে বির্তকিত একটি সংগঠনটি। এদিকে স্থানীয় এবিএম সাকের নামের এক ব্যক্তির জমি দখল করে দিনে-রাতে বহুতল বিশিষ্ট মার্কেট নির্মাণ করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে ওই দখলবাজ চক্র। এ ঘটনায় জমির মালিক কক্সবাজার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বরাবর গত ৩০ মে একটি নিষেধাজ্ঞার আবেদন করলে আদালত বিবাদী পক্ষকে উক্ত জমিতে প্রবেশে বারণ করেন এবং থানা পুলিশকে আইনশৃঙ্খলা বজার রাখার নির্দেশ প্রদান করেন।

 

কিন্তু ওই দখলবাজ চক্র এসবের তোয়াক্কা না করে দিনে-রাতে নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। জমির মালিক এবিএম সাকের এ বিষয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এবং দখলবাজচক্রের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান। এব্যাপারে কাকারা ইউপি চেয়ারম্যান শওকত ওসমান বলেন, জমি দখলের বিষয়টি আদালতে মামলা চলছে। দখলবাজদের অনেকবার নিষেধ করেছি। কিন্তু তারা আমার কথা শুনছে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আমাদের এন্ড্রয়েড এপস আপনার মোবাইলে ইন্সটল করুন।

Developer By Zorex Zira